ফতুল্লায় ৩২’শ ইয়াবাসহ আটক ৩ জন

ফতুল্লার তক্কার মাঠ এলাকা থেকে ৩২’শ পিস ইয়াবা (মিথালি অ্যামফেটামিন) ট্যাবলেটসহ ৩ জন মাদক বিক্রেতাকে গ্রেপ্তার করেছে নারায়ণগঞ্জ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের সদস্যরা।

বুধবার বেলা ৩টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের ‘খ’ জোনের ইনচার্জ পরিদর্শক মো. ফজলুল হক খাঁনের নেতৃত্বে এলাকাটিতে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ সময় কথিত মাদক বিক্রেতা আরমান হোসেনের কক্ষে তল্লাশী করে কাগজের শপিং ব্যাগে রক্ষিত ৩২’শ পিস ইয়াবা (মিথালি অ্যামফেটামিন) ট্যাবলেটসহ তিনজনে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, ফতুল্লার শিয়ারচর তক্কার মাঠ এলাকার মৃত সোহরাব হোসেন ও নূও বানুর ছেলে মো. আরমান হোসেন (৩৬), চট্টগ্রাম লোহাগড়া সুফিনগর চুনাতি গ্রামের ওচমান ওরফে ওসমান (৪১) ও ফেনী ছাগলনাইরা দক্ষিণ কুহুমা গ্রামের আফজাল রহমানের ছেলে কামাল উদ্দিন (৪৭)।

এই ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের পরিদর্শক মো. ফজলুল হক খান বাদী হয়ে গ্রেপ্তার ৩ ব্যক্তির বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় মাদকদ্রব্য আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলায় বলা হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পরিদর্শক মো. ফজলুল হক খান এর নেতৃত্বে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের একটি রেইডিং টিম গঠন করে ফতুল্লার শিয়ারচর তক্কার মাঠ হিমাচল মাঠ সংলগ্ন আসামী আরমান হোসেনের বসত তল্লাশী অভিযান পরিচালনা করা হয়। স্থানীয় লোকজনের সামনে আরমান হোসেনের নিজ কক্ষে তল্লাশী করে একটি শপিং ব্যাগের ভিতর রক্ষিত ৩২’শ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার সংস্থাটির রেইডিং টিমের সদস্যরা। পরে অবৈধভাবে মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট নিজেদের দখলে রাখা ও বিক্রয় করার অভিযেগে আরাম হোসেন, ওচমান ওরফে ওসমান ও কামাল উদ্দিন নামের কথিত তিন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়।