না.গঞ্জে “উনপঞ্চাশ বাতাস” শুক্রুবারে

করোনার কারণে প্রায় ৭ মাস প্রেক্ষাগৃহগুলো বন্ধ থাকার পর গত ১৬ অক্টোবর খুলে দেয়া হয়েছে। প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে চলচ্চিত্র দেখার জন্য বেশ আগ্রহ নিয়ে বসে ছিল নারায়ণগঞ্জের চলচ্চিত্র প্রেমীরা। তবে সরকার প্রেক্ষাগৃহগুলো খুলে দিলেও নারায়ণগঞ্জের সিনেমা হলগুলোতে খুব সামান্য সংখ্যক দর্শকের আনাগুনা । কারন হিসেবে সংশ্লিষ্টরা বলছেন নতুন ছবি মুক্তি না দেয়ায় অনেকেই সিনেমা দেখতে আসছেন না।

তবে আশার আলো হচ্ছে নারায়ণগঞ্জের অত্যাধুনিক সিনেমা হল “সিনেস্কোপে” আগামী শুক্রুবার ৩০শে অক্টোবর মুক্তি পাচ্ছে “উনপঞ্চাশ বাতাস”। নতুন চলচ্চিত্র মুক্তি পেলে আশানুরূপ দর্শক হবে বলে মনে করছেন সিনেস্কোপ কর্তৃপক্ষ। সেইসাথে করোনাকালে সিনেমা হল চালাতে গিয়ে মানুষের নিরাপত্তাকেই প্রাধান্য দিচ্ছেন তারা।

সিনেস্কোপের বক্স অফিস ম্যানেজার আবু ইউসুফ জানান, ” আমরা ভেবেছিলাম দর্শক হয়তো সিনেমা হলের কথা ভুলে গেছে। অনেকেই আসছে সিনেমা দেখা জন্য। “উনপঞ্চাশ বাতাস” বাংলা ছবিটি মুক্তি উপলক্ষে অনেক রেস্পন্স পাচ্ছি।

তিনি জানান, আমাদের সিনেমা হলে ৩০ আসন বিশিষ্ট হলেও করোনায় মানুষের সুরক্ষার কথা চিন্তা করে ১৫জন বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া মাস্ক ছাড়া কেউ প্রবেশ করতে পারছে না।”

‘উনপঞ্চাশ বাতাস’ ছবিটি পরিচালনা করেছেন মাসুদ হাসান উজ্জ্বল। প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন ছোট পর্দার অভিনেত্রী শার্লিন ফারজানা ও ইমতিয়াজ বর্ষণ। সিনেমাটির কাহিনী, সংলাপ, চিত্রনাট্য, সংগীত পরিচালনা, গান রচনা, এমনকি পোস্টার ডিজাইনও করেছেন নির্মাতা নিজেই ।

শার্লিন-বর্ষণ ছাড়া আরও রয়েছেন ইলোরা গওহর, ইনামুল হক, সেঁজুতি, মানস বন্দ্যোপাধ্যায়, খায়রুল বাসার প্রমুখ। এর আগে প্রথমে ২৮ ফেব্রুয়ারি ‘উনপঞ্চাশ বাতাস’ মুক্তির ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সেটি পিছিয়ে ১৩ মার্চ করা হয়। এরপর করোনার কারণে দীর্ঘ ৭মাস পর ঢাকায় সিনেমাটির মুক্তি পেয়েছে গত শুক্রুবার ২৩শে অক্টোবর।