না’গঞ্জের আলোচিত সেই ভিকি ডিবি পুলিশের হাতে গ্রেফতার

না’গঞ্জের আলোচিত সেই ভিকি ডিবি পুলিশের হাতে গ্রেফতার

আলোচিত সেই ভিকিকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা শাখা নারায়ণগঞ্জের ডিবি পুলিশ।

বেঙ্গল রিপোর্ট২৪:
সংবাদ প্রকাশের পর আলোচিত সেই ভিকিকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা শাখা নারায়ণগঞ্জের ডিবি পুলিশ। নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমানের ছেলে অয়ন ওসমানের সম্বন্ধী (স্ত্রীর বড় ভাই) মিনহাজ উদ্দিন ভিকি।

শনিবার (৩১ আগস্ট) সন্ধ্যায় নগরীর মাসদাইর এলাকার নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মিনহাজউদ্দিন ভিকি নগরীর মাসদাইর এলাকার ফয়েজউদ্দিন আহমদ লাভলুর ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের পরিদর্শক এনামুল হক বলেন, গত রাতে এক সিএনজি চালককে পিটিয়ে গুরুতর জখম ও টাকা-পয়সা লুটপাটের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ রয়েছে। তাকে বিভিন্ন স্থানে প্রকাশ্যে অবৈধ পিস্তল নিয়ে ঘুরতে দেখা গেছে বলেও অভিযোগ রয়েছে।

ভিকির বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ রয়েছে। গত ২৯ মার্চ জামতলায় এক প্রবাসীর কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগে ফতুল্লা মডেল থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা হয়। গত ১৯ জুন পাটের বস্তা ছিনতাইয়ের ঘটনায় তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়। পুলিশ অভিযান চালিয়ে তার হেফাজত থেকে পাটের বস্তা উদ্ধার করতে পারলেও তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি। সর্বশেষ গতকাল শুক্রবার (৩০ আগস্ট) রাতে এক সিএনজি চালককে বেধরক পিটিয়ে গণমাধ্যমে শিরোনাম হন ভিকি।

এর আগে ৩১ আগষ্ট (শনিবার) দিবাগত রাতে চাষাঢ়া রাইফেল ক্লাবের সামনে একটি সিএনজি সাইনবোর্ডের দিকে যাচ্ছিলো। উল্টো দিক থেকে আসা একটি দ্রুতগামী প্রাইভেট কারের সাথে সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এরপর প্রাইভেট কার থেকে নামেন এক মোটাসোটা যুবক। হাতে তার হকি স্টিক। তা দিয়ে বেদম মারধর করেন সিএনজি চালক ও যাত্রিদের। যাওয়ার সময়ে হুমকি দেন, এ সড়কে আর কোন সিএনজি চলবে না। ভুক্তভোগী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওই যুবকের নাম মিনহাজউদ্দিন ভিকি। তিনি এমপি শামীম ওসমানের পুত্র অয়ন ওসমানের সমন্ধি।

ভিকির হকিষ্টিকের আঘাতে গুরুতর আহত হয়েছে সিএনজি চালক কামাল হোসেন মুন্সিগঞ্জ জেলার টঙ্গিবাড়ী থানার পাঁচগাও গ্রামের মৃত সুলতান শেখে এর ছেলে। সে ঢাকা নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডে সিএনজি চালায়। ঘটনার সময় উপস্থিত প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সিএনজি চালক শুরুতে মনে করেছিলেন, এটি সরকারি গাড়ি। আসলে গাড়িটি ছিলো ব্যক্তি মালিকানা এবং অবৈধ ভাবে গাড়িটিতে ভিআইপি হর্ণ ব্যবহার করা হয়েছে।

ঘটনার বিষয়ে সিএনজি চালক কামাল হোসেন দৈনিক সংবাদচর্চাকে বলেন, গাড়িটি ইচ্ছেকৃত ভাবে আমার সিএনজির সাথে লগিয়ে দিয়েছে। পরবর্তীতে কিছু বুঝে উঠার আগেই গাড়ী থেকে নেমে আমাকে মারতে থাকে এবং আমার সিএনজির সামনের গ্লাস ভেঙ্গে ফেলে।

নাম না প্রকাশ করার শর্তে অন্য এক সিএনজি চালক বলেন, ভিকি সকল সিএনজি চালকদের হুমকি দিয়ে গেছেন। তিনি বলেছেন আগামীকাল থেকে চাষাড়ায় কোন সিএনজি চলতে পারবে না। তিনি দুর্ঘটনা কবলিত সিএনজি ছাড়াও অন্য এক সিএনজি চালককে চড় থাপ্পর মেরেছে।

এর আগে ২৯ মার্চ জামতলা এলাকায় এক প্রবাসীর কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগে ফতুল্লা মডেল থানায় ভিকির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছিলো। তবে সে মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ। ১৯ জুন ১৮শ’ পিস চটের বস্তা ছিনতাইয়ের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা হয় সদর মডেল থানায়।

ভিকি শহরের গুলশান সিনেমা হলের মালিক ফয়েজউদ্দিন লাভলুর ছেলে। তবে অয়ন ওসমানের সাথে তার ছোট বোনের বিয়ের পর থেকে অনেকে ভিকিকে ভিকি ওসমান নামেই ডাকে। আর এমপি পরিবারের সাথে সম্পর্ক করার পর থেকেই বেপরোয়া হয়ে উঠে ভিকি। (সূত্র: সংবাদচর্চা)

সংবাদটি শেয়ার করুন




Copyright © 2019 All rights reserved bengalreport24.com
Design BY NewsTheme