টিকা নিলেন নাহিদা বারিক ও ডা. জাহিদ

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রতিষেধক কোভিশিল্ড টিকা (ভ্যাকসিন) গ্রহণ করেছেন সম্মুখসারির দুই যোদ্ধা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা বারিক এবং জেলা করোনা ফোকাল পারসন সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ইউএইচএফপিও) ডা. জাহিদুল ইসলাম।

মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি) কোভিড ডেডিকেটেড নারায়ণগঞ্জ ৩শ’ শয্যা হাসপাতাল কেন্দ্রে টিকা নেন তারা।

গত বছরের মার্চে সর্বপ্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় নারায়ণগঞ্জে। এরপর করোনার প্রকোপ বাড়তে থাকলে এই জেলাকে করোনার হটস্পট ঘোষণা করা হয়। লকডাউন করা হয় পুরো জেলা। লকডাউন চলাকালীন সম্মুখসারির যোদ্ধা হিসেবে মাঠপর্যায়ে কাজ করেছেন ইউএনও নাহিদা বারিক ও ইউএইচএফপিও ডা. জাহিদুল ইসলাম। পেশাগত ও মানবিক দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে মহামারী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন দু’জনই। মঙ্গলবার নারায়ণগঞ্জ ৩শ’ শয্যা হাসপাতালে করোনার প্রতিষেধক গ্রহণ করার সুযোগ করে দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তারা।

সদর ইউএনও নাহিদা বারিক জানান, সদর উপজেলা পরিষদে টিকা গ্রহণের রেজিস্ট্রশন বুথ বসানো হয়েছে। যারা রেজিস্ট্রেশন করতে চান তারা সেখানে গিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। টিকা গ্রহণের সময় সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস উপস্থিত ছিলেন। তবে তিনি টিকা গ্রহণ করেননি।