সন্ত্রাসী জনির বিরুদ্ধে ফতুল্লা থানায় হিরার অভিযোগ

বেঙ্গল রিপোর্ট২৪
বিশেষ পেশার একাধিকজনের সাথে সখ্যতা রেখে ফতুল্লা রেল লাইন বটতলার জনি ওরফে মোল্লা জনি ও তার বাহিনর সদস্যরা হয়ে উঠেছে বেপোরোয়া। জন্ম দিচ্ছে মারামরি, লুটতরাজ, মাদক ব্যবসা, ভুমীদস্যুতা সহ একের পর এক অপরাধমূলক কর্মকান্ডের। সাম্প্রতিক সময়ে মোল্লা জনি ও তার বাহিনীর বিরুদ্বে পুলিশ সুপারের কার্যালয় সহ ফতুল্লা মডেল থানায় একাধিক অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। সর্বশেষ গত রবিবার বিকেলে ৭১ শতাংশ জমি জবর-দখল করার অভিযোগে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সঞ্জনা আল-আবেদীন ও একই দিনে বটতলা এলাকার কছুর উদ্দিন মাস্টারের উপর হামলার ঘটনায় জনি বাহিনীর বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

অভিযোগকারী হিরা জানায়, জাহিদুল ইসলাম জনি অরুফে মোল্লা জনি ও তার সহযোগীরা দীর্ঘদিন ধরে তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নিউ চাঁদ প্রসেসিং মিল দখলের চেষ্টা করে। তারই ধারাবাহিকতায় রোববার দুপুরে জনির নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান প্রবেশ করে দখলের চেষ্টা করে। এসময় আমার বাবা কছুর উদ্দিন মাস্টার খবর পেয়ে বাঁধা দিলে সন্ত্রসীরা বাবাকে মারধর করে। এ ঘটনায় ৯৯৯ ফোন করলে ফতুল্লা পুলিশ এসে সন্ত্রাসী মোল্লা জনি ও তার বাহিনীর সদস্যদের ঘটনাস্থলে পেয়ে স্থান ত্যাগ করার নিদের্শ প্রদান করলে সন্ত্রাসীরা পুলিশের নিদের্শকে তোয়াক্কা না করে উল্টো হুমকী দিয়ে বলেন ‘এসপির সাথে কথা হয়েছে’। এসময় এসআই ফজলুল হক কঠোর হলে সন্ত্রাসীরা চলে যায়। প্রতক্ষ্যদর্শীদের অভিযোগ, বিশেষ পেশার কিছু লোককে সাথে নিয়ে মোল্লা জনি তার সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করে বেড়াচ্ছে। পুলিশ সুপার কিংবা থানা পুলিশের কাছে কোন অভিযোগ হলেই এসব বিশেষ পেশার কথিত সাংবাদিকরা সন্ত্রাসী জনির পক্ষে অবস্থান নিয়ে থাকেন।

স্থানীয়দের অভিযোগ, সাবেক এমপি কবরীর ক্যাডার ফতুল্লা রেললাই বটতলা এলাকার জনি ও তার সহযোগীরা আবারো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। অভিযোগ উঠেছে ভূমিদস্যুতা,চাঁদাবাজী, মাদক ব্যবসাসহ নানা অপকর্মের। তার সহযোগী হিসেবে পর্দার আড়াল থেকে সহযোগীতা করছেন বিশেষ পেশার কিছু মানুষ এমন অভিযোগ স্থানীয়দের। এবার জনির বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে ফতুল্লায় এস বি নিট কম্পোজিট নামক প্রতিষ্ঠানটি দখল করে নেয়ার। এ ঘটনায় বারবার প্রশাসনের দ্বারস্ত হয়েও কোন ফলপ্রসূ ফলাফল পাওয়া যাচ্ছেনা। সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার ও ফতুল্লা মডেল থানায় এ বিষয়ে অভিযোগ করা হয়েছে এমন অভিযোগ প্রতিষ্ঠানটির মালিক শাহনাজ পারভীনের।